চিরায়ত গল্প শিয়াল ও আঙুর ফল

অনেক অনেক বছর আগের এক শিয়ালের গল্প শুনি চলো। গল্পের শিয়ালটা বাস করতো এক আঙুর বাগানের পাশেই। ও ছিলো একটু পেটুক আর লোভীও। বাগানে থোকা থোকা আঙুর। কিন্তু সেগুলো ছিলো কাঁচা। শিয়ালটা প্রায়ই লোভীর মতো আঙুরের দিকে তাকিয়ে ভাবতো, আর ক’দিন পরই পাকবে আঙুর; তখন খুব মজা করে খাবো। এই.

মাটি ও পিতলের পাত্র

ছবির মতো সুন্দর ও প্রাণবন্ত একটি গ্রাম। গ্রামের পাশ দিয়েই নদীর মতো করে চলে গেছে একটা পাথুরে পাহাড়। এই পাথুরে পাহাড় গ্রামটাকে আরও সুন্দর করে তুলেছে। পাহাড় থেকে প্রবাহিত হয় ঝর্ণা। এর সৌন্দর্য দেখে সবাই মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে থাকে। গ্রামের মানুষ এই ঝর্ণার পানি দিয়েই তাদের ধোয়ামোছা সারে।

পিঁপড়া ও ঘাসফড়িং

সে অনেক আগের কথা। সময়টা ছিলো গ্রীষ্মকাল। এই গ্রীষ্মের কোমল হাওয়ায় ভেসে একটা ঘাসফড়িং মনের সুখে গান গাচ্ছিলো। তার পাশ দিয়েই তখন যাচ্ছিলো একটা পিঁপড়া। সে অনেক দূর থেকে সংগ্রহ করা ভুট্টা নিয়ে খুব কষ্টে বাসায় নিয়ে যাচ্ছে। তার কষ্ট দেখে ঘাসফড়িং বললো, ‘ওহে পিঁপড়া ভাই, কেন এতো পরিশ্রম করছো,.

বাংলা কিশোর অনুবাদ গল্প ইয়াবড় সিংহ আর এইটুকুন ইদুর

ইয়াবড় সিংহ আর এইটুকুন ইদুর

অনুবাদ: পান্থ বিহোস | ছবি: রজত গভীর জঙ্গলে বাস করে সিংহটা। ওর ভয়ে সবাই তটস্থ। নিজেকে বনের রাজা হিসেবে ঘোষণা দিয়ে সে সবার ভয় আর শ্রদ্ধা অর্জন করে নিয়েছে। তার আশপাশে জঙ্গলের প্রাণীরা আসতে পারে না। সামান্য কারণেই তার মেজাজ তিরিক্ষি হয়ে যায়। আর মেজাজ বিগড়ালেই হলো। সামনে যাকে পায়.